রবিবার, ১৬ জুন ২০২৪, ০৮:৪১ অপরাহ্ন

ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের বিএসসির সমমান মর্যাদার দাবীতে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন

নিজস্ব প্রতিবেদক / ৫৪ বার নিউজটি পড়া হয়েছে
আপডেট টাইম: রবিবার, ২ জুন, ২০২৪, ১২:৪২ অপরাহ্ন

কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষাকে জনপ্রিয় করার স্বার্থে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার্সদের বিএসসি (পাস) সমমান মর্যাদা প্রদানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ অবিলম্বে বাস্তবায়ন করার দাবীতে কুষ্টিয়ায় মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়েছে।

রোববার (২ জুন) সকালে শহরের কাঁটায় খানা মোড় এলাকায় পলিটেকনিক ইনস্টিটিউট চত্বরে ইনস্টটিউিশন অব ডিপ্লমা ইঞ্জিনিয়ার্স, বাংলাদশ (আইডিইবি) কুষ্টিয়া শাখার উদ্যোগে মানববন্ধন ও স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।

মানববন্ধনে উপস্থিত ছিলেন, বাংলাদশে (আইডিইবি) কুষ্টিয়া জেলা শাখার সভাপতি রফিকুল ইসলাম।

এসময় আরো উপস্থিত ছিলেন সংগঠনের সহ-সভাপতি বাদশা মামুনুর রশিদ রশিদ, সাধারণ সম্পাদক সেলিম রেজা, কাউন্সিলর জামাত আলী, কাউন্সিলর সামসুল হক, কাউন্সিলর সারোয়ার হোসেন, কাউন্সিলর শফিকুল আজম, দপ্তর সম্পাদক হাসানুর রহমান রনি, জন সংযোগ ও প্রচার সম্পাদক শাহ জামান, সদস্য ও শিক্ষক নেতা আজিজুর হক, সদস্য মুস্তাফিজুর রহমান, বাবুল’সহ শতাধিক ডিপ্লমা ইঞ্জিনিয়ার ও শিক্ষার্থীরা।

মানববন্ধন শেষে কুষ্টিয়ার জেলা প্রশাসক মোঃ এহেতেশাম রেজা’র মাধ্যমে শিক্ষামন্ত্রীর সমিপে স্বারকলিপি প্রদান করনে আইডিইবি কুষ্টিয়ার জেলা শাখার নেতৃবৃন্দ।

স্বারকলিপিতে উল্লেখ করা হয়, চতুর্থ শিল্পবিপ্লবের প্রযুক্তিগত ও বৈশ্বিক কর্মবাজারের চ্যালেঞ্জ মোকাবেলায় দক্ষ মানবসম্পদ উন্নয়নে মাননীয় প্রধান জননেত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বাধীন সরকার কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষাকে মূলস্রোতধারায় নিয়ে এসে এই শিক্ষা ভর্তির হার ২০৩০ সালে ৩০% ও ২০৪০ সালের মধ্যে ৫০-৬০% এ উন্নীতকরণের পরিকল্পনা নিয়েছেন।

সরকারের এই পরিকল্পনা বাস্তায়নে শিক্ষা মন্ত্রণালয় শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের উদ্বুদ্ধকরণে বহুমাত্রিক কার্যক্রমের ধারাবাহিকতায় কারিগরি ও মাদ্রাসা শিক্ষা বিভাগ ১৫ এপ্রিল ২০২৪ তারিখে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার বিএসসি (পাস) কোর্সের সমমানের মর্যাদা প্রদান করার বিষয়ে মতামত ও সুপারিশ দেয়ার জন্য ১০ সদস্যের একটি জাতীয় কমিটি গঠন করায় সরকারকে আন্তরিক ধন্যবাদ ও কৃতজ্ঞতা জানানো হয়। স্বারকলিপি আরো বলা হয়, বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারগণ উচ্চ মাধ্যমিক উত্তীর্ণের পর ৪ বছর মেয়াদি বিএসসি ইন ইঞ্জিনিয়ারিং এবং মাধ্যমিক উত্তীর্ণের পর ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারগণ ৪ বছর মেয়াদি ডিপ্লোমা ইন ইঞ্জিনিয়ারিং কোর্স সম্পন্ন করেন।

এক্ষেত্রে সাধারণ শিক্ষার একাডেমিক পার্থক্য মাত্র উচ্চ মাধ্যমিকের ২ বছর। দেশের বিভিন্ন শিক্ষা কমিশন ও শিক্ষানীতি প্রণয় কমিটি বিএসসি ইঞ্জিনিয়ারিং ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং উভয় শিক্ষাকে উচ্চ শিক্ষাভুক্ত বা টারশিয়ারী শিক্ষা হিসেবে গণ্য করেছেন। বিএসসি ইঞ্জিনিয়ার ও ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ার উভয়েই ইঞ্জিনিয়ার, যা রাষ্ট্রীয় ও আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত। তাই কারিগরি ও বৃত্তিমূলক শিক্ষার প্রসারে ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারিং শিক্ষার প্রতি শিক্ষার্থী ও অভিভাবকদের আকৃষ্ট করার জন্য ডিপ্লোমা ইঞ্জিনিয়ারদের বিএসসি (পাস) সমমান মর্যাদা প্রদানে শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের উদ্যোগ অবিলম্বে বাস্তবাায়ন করার জন্য মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সুদৃষ্টি কমনা করা হয়।


আপনার মতামত লিখুন :

Comments are closed.

এ জাতীয় আরো খবর...
এক ক্লিকে বিভাগের খবর